ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৪ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৯

৭ ফেব্রুয়ারি ইলিয়াসের বিরুদ্ধে সুবাহর মামলার প্রতিবেদন

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:৪৭, ১৯ জানুয়ারি ২০২২  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

যৌতুকের জন্য নির্যাতনের অভিযোগে গায়ক ইলিয়াস হোসাইনের বিরুদ্ধে স্ত্রী অভিনেত্রী শাহ হুমায়রা হোসেন সুবাহর করা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ৭ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেছেন আদালত। 

বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম ইয়াসমিন আরার আদালত নতুন এ দিন ধার্য করেন। 

এদিন মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন ধার্য ছিল। তবে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা প্রতিবেদন দাখিল করেননি। এজন্য আদালত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য এ দিন ধার্য করেন। 

এর আগে, ৩ জানুয়ারি বনানী থানায় মামলাটি করেন সুবাহ। মামলায় অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত বছর সেপ্টেম্বরে সুবাহর সঙ্গে ইলিয়াসের পরিচয়। এরপর তাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্কে গড়ে ওঠে। গত ১ ডিসেম্বর তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বিয়ের সময় সুবহার পরিবারের পক্ষ থেকে ইলিয়াসের চাহিদা মোতাবেক ১২ লাখ টাকা মূল্যের রোলেক্স ব্র্যান্ডের ঘড়িসহ ১৫ লাখ ৭৫ হাজার টাকার পণ্য দেওয়া হয়। কিন্তু এতেও ইলিয়াস সন্তুষ্ট হয়নি।

এর মাঝে সুবাহ জানতে পারে যে, ইলিয়াসের একাধিক বিয়ে রয়েছে এবং অসংখ্য প্রেমের সম্পর্ক চলমান। এরই মাঝে ইলিয়াস সুবাহর কাছে ফ্ল্যাট কেনা বাবদ ৫০ লাখ এবং গাড়ির জন্য আরো ৩০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। 

গত ৯ ডিসেম্বর ইউটিউব চ্যানেল কেনার জন্য সুবাহর মায়ের কাছে আরো ১০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। তাকে আড়াই লাখ টাকা দেয় সুবাহর পরিবার। পরবর্তীতে গত ২৭ ডিসেম্বর দুপুরে ফ্ল্যাট ও গাড়ি কেনার জন্য ৮০ লাখ টাকার জন্য চাপ দেয়। এ নিয়ে তাদের মাঝে ঝগড়া হয়। এরই জেরে রাত ৮টার দিকে তাকে শারীরিক নির্যাতন করে। পরদিন আবারও ৮০ লাখ টাকা যৌতুক চায়। 

এ টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে সুবাহকে কিল-ঘুষি-লাথি ও চুলের মুঠি ধরে মাথা দেওয়ালের সঙ্গে ঠুকে জখম করে ইলিয়াস। এরপর সুবাহকে ব্যথার ওষুধ বলে অন‌্য ওষুধ খাওয়ান। একটু পর সুবাহ অজ্ঞান হয়ে যায়। এ সুযোগে ইলিয়াস আলমারিতে থাকা ২০ লাখ টাকার স্বর্ণালঙ্কার এবং ৫০ হাজার টাকা নিয়ে যান।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়