ঢাকা, বুধবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০২২ ||  অগ্রাহায়ণ ২৩ ১৪২৯

দেশ নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করছে তাসনিম খলিল-তাজ হাশমি

রাজনীতি ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৫:১৩, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২  

তাসনিম খলিল-তাজ হাশমি

তাসনিম খলিল-তাজ হাশমি

মানবাধিকার প্রতিটি মানুষের এক ধরনের অধিকার যেটা তার জন্মগত ও অবিচ্ছেদ্য। মানুষমাত্রই এ অধিকার ভোগ করবে এবং চর্চা করবে। কিন্তু সবাই সমানভাবে সমান সুবিধা ভোগ করতে পারে না। আর্থ-সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় প্রেক্ষাপটে এই সুবিধার বিভিন্ন তারতম্য হয়।

কিছু সুবিধাবাদী মানুষ নিজেদের সুখের জন্য মাতৃভূমি ছেড়ে উন্নত কিছু দেশে গিয়ে বসে আছে। শুধু বসেই নেই, তারা সেখানে সুখে থাকার পর নিজ দেশ নিয়ে বিভিন্ন বিভ্রান্তিকর তথ্যও প্রচার করছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাংলাদেশের বেশকিছু বুদ্ধিজীবী ও সাংবাদিক নামধারী মানুষ এই সুবিধাবাদ চরিত্র নিয়ে বসে আছে উন্নত সব দেশে। ছড়াচ্ছে দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়ে হিংসাত্মক বিদ্বেষমূলক বক্তব্য।

যেমন তাসনিম খলিল, মানবাধিকারের দিক থেকে নয় নম্বরে থাকা দেশ সুইডেনে বসে আছেন। কিন্তু তিনি কি পারবেন, সুইডেনের মিলিটারি গোয়েন্দা সংস্থা MUST-এর বিষয়ে একটি শব্দ উচ্চারণ করতে?

তাজ হাশমি, টিটো, ক্যাপ্টেন শহীদ ইসলাম মানবাধিকার লিস্টের ছয় নম্বরে থাকা দেশ কানাডা থেকে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে হিংসা বিদ্বেষ ছড়ায়। তারা কি পারবে, কানাডার গোয়েন্দা সংস্থা নিয়ে বিন্দু মাত্র শব্দ করতে?

আব্দুর রব ভুট্ট, হাসিনা আক্তার মানবাধিকার লিস্টের ১৪ নম্বরে থাকা দেশ যুক্তরাজ্যে থেকে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে বিষাদগার করে। তারা কি কখনো পারবে Joint Intelligence Committee (JIC) নিয়ে একটি কথা বলতে?

মানবাধিকার তালিকার শীর্ষে থাকা দেশগুলোকে নিয়ে কেউ কোনো অপপ্রচার করলে, সে সব মানুষের জীবনে করুণ পরিণতি ডেকে আনে উক্ত দেশের বিভিন্ন সংস্থা। অপরদিকে বাংলাদেশ নিয়ে পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কুৎসা রটানো হলেও বাংলাদেশ সরকার তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে না।

এ ব্যাপারে বিশিষ্টজনরা বলছেন, নিজেরা মানবাধিকারের বুলি আওড়ানো আলোকিত দেশে বসে, সেসব দেশের গুণগান করছে। আর দেশের বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বিতর্কিত করতে উঠেপড়ে লেগেছে। আলোকিত জায়গায় বসে ওরা চাইছে বাংলাদেশ নামক সোনার দেশটাকে অন্ধকার বানাতে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়