ঢাকা, বুধবার   ২০ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ৪ ১৪২৮

ঢাকা ম্যারাথনের রেজিস্ট্রেশন শুরু

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:১৮, ২৯ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ১১:১৯, ২৯ ডিসেম্বর ২০২০

বহুল কাঙ্ক্ষিত ঢাকা ম্যারাথনের রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। সাধারণ জনগণ রেজিস্ট্রেশন করার মাধ্যমে আগামী ১০ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে যাওয়া ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ম্যারাথন-২০২১’ এ অংশগ্রহণ করতে পারবে। সোমবার থেকে ঢাকা ম্যারাথনের রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু হয় বলে জানা গেছে।

তথ্যসূত্র বলছে, ‘মুজিববর্ষ’ উদযাপনের অংশ হিসেবে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের সার্বিক সমন্বয়ের মাধ্যমে সেনাবাহিনী মূল আয়োজক হিসেবে এই ম্যারাথন পরিচালনা করবে। একইসঙ্গে সহযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্পোর্টস ভিশন লিমিটেড ও ট্রাস্ট ইনোভেশন লিমিটেড ম্যারাথন আয়োজনের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছে।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) জানায়, আয়োজক কমিটি জানিয়েছে, এর আগে বাংলাদেশে অনেক ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হলেও এই প্রথমবারের মতো একটি আন্তর্জাতিক মানের ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। দেশি-বিদেশি খ্যাতনামা দৌড়বিদরা (১৮ বছরের ঊর্ধ্বে) এই ম্যারাথনে অংশ নেবেন। নারী ও পুরুষ দুই বিভাগে ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হবে। ম্যারাথনটি ১০ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ৬টায় আর্মি স্টেডিয়াম থেকে আরম্ভ হয়ে হাতিরঝিল এলাকায় শেষ হবে। এটি ৩টি ক্যাটাগরিতে পরিচালনা করা হবে। ফুল ম্যারাথন, ৪২ দশমিক ১৯৫ কিলোমিটারের। যেখানে দেশি ও বিদেশি ১০০ জন দৌড়বিদ অংশ নেবেন; যাদের শুধু ম্যারাথনে অংশগ্রহণ ও শেষ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তারা অংশ নিতে পারবেন। হাফ ম্যারাথন-২১ দশমিক ৯৭ কিলোমিটার; এই ম্যারাথনে ১০০ জন বাংলাদেশি দৌড়বিদ, যাদের পূর্বে ম্যারাথনে অংশ নেওয়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে তারা অংশ নেবেন।

এছাড়া রয়েছে ডিজিটাল ম্যারাথন। যেখানে ‘মুজিববর্ষে ডিজিটাল বাংলাদেশে ডিজিটাল ম্যারাথন’ স্লোগানকে মাথায় রেখে মোবাইল অ্যাপসের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন করে বাংলাদেশসহ পৃথিবীর যেকোনও স্থান থেকে সর্বস্তরের জনগণ অংশগ্রহণ করতে পারবেন। দৌড়বিদরা ১০ জানুয়ারি (২০২১) থেকে ৭ মার্চ (২০২১) তারিখের মধ্যে বয়সভিত্তিক নিজস্ব সময়ে সুবিধাজনক স্থানে দৌড় সম্পন্ন করবেন। ডিজিটাল ম্যারাথনে ৫ কিলোমিটার, ১০ কিলোমিটার, হাফ ও ফুল ম্যারাথন আয়োজিত হবে। ফুল ম্যারাথন টেলিভিশনে দর্শকদের জন্য সরাসরি সম্প্রচার করা হবে। বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করেই এই আয়োজন পরিচালনা করা হবে।

সাধারণ জনগণের জন্য রেজিস্ট্রেশনের ব্যবস্থা উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। এ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১’-এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট (www.dhakamarathon.com.bd) এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম-ফেসবুকপেজে (পরবর্তীতে সবাইকে অবগত করা হবে) জানা যাবে। আয়োজক কমিটি আশাবাদ ব্যক্ত করেন, ২০২২ সাল থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ব্যবস্থাপনায় প্রতিবছর ১০ জানুয়ারি বৃহত্তর পরিসরে স্পোর্টস ভিশন লিমিটেড এবং ট্রাস্ট ইনোভেশন লিমিটেডের যৌথ আয়োজনে এবং সেনা ক্রীড়া নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের সার্বিক সহযোগিতায় সব বিভাগীয় শহরকে সম্পৃক্ত করে এ ধরনের ম্যারাথন আয়োজন করা হবে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়