ঢাকা, সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ১৬ ১৪২৯

জাকিয়া হত্যা মামালায় স্বামী নিশানসহ ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৫:৫১, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

গোপালগঞ্জে এক কোটি টাকা যৌতুকের জন্য স্ত্রী জাকিয়া বেগমের হত্যার অভিযোগে স্বামী মোর্শেদায়ান নিশানসহ চারজনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মোহাম্মদ জাকির হোসেনের আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

এ মামলার অপর আসামিরা হলেন- নিশানের ভাই এহসান সোশান, বোনজামাই মোহাম্মদ হাসান শেখ ও ম‍্যানেজার আনিসুর রহমান।

এর আগে, প্রথমবার গত ২৭ জানুয়ারি এবং দ্বিতীয়বার ১০ ফেব্রুয়ারি রায়ের জন্য দিন ধার্য ছিল। তবে রায় প্রস্তুত না হওয়ায় আদালত রায়ের জন্য ২৪ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি রাত ২টার সময় গোপালগঞ্জ জেলার সিলনা রোড বেদগ্রাম ৬৩৯/৫নং বাড়িতে গোপালগঞ্জ মাছরাঙা টেলিভিশনের সাংবাদিক মোর্শেদায়ান নিশানের বসতবাড়িতে তার স্ত্রী জাকিয়া বেগমকে এক কোটি টাকা যৌতুকের জন্য খুন করে। পুলিশ সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলের বাড়িতে গিয়ে আসামি মোর্শেদায়ান নিশান, তার ভাই এহসান সুশান, বোনজামাই মোহাম্মদ হাসান শেখ ও ম‍্যানেজার আনিসুর রহমানকে আটকসহ জাকিয়া বেগমকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিলে তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। 

এছাড়া ঘটনার পূর্বে জাকিয়া বেগমের পিতা আলহাজ্ব জালাল উদ্দিন মল্লিক তার মেয়ের সুখ ও কল‍্যাণের কথা চিন্তা করে ঘটনাস্থলের দোতলা বাড়িটি তৈরি করে দিয়েছিল। এ ব‍্যাপারে আলহাজ্ব জালাল উদ্দিন মল্লিক বাদী হয়ে জাকিয়া বেগমের স্বামী মোর্শেদায়ান নিশান, তার ভাই এহসান সোশান, বোনজামাই মোহাম্মদ হাসান শেখ ও ম‍্যানেজার আনিসুর রহমানের বিরুদ্ধে বাদী হয়ে গোপালগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ২০১৬ সালের ৯ জুন আদালতে ৪ জন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এরপর ঐ বছরের ৭ সেপ্টেম্বর আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরুর আদেশ দেন।

এ মামলার বিচার চলাকালীন বিভিন্ন সময়ে আদালত ২০ জন সাক্ষীর জবানবন্দি ও জেরা রেকর্ড করা হয়েছে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়