ঢাকা, শুক্রবার   ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||  আশ্বিন ১৫ ১৪২৯

ইতিবাচক সব পক্ষ, ঘুরে দাঁড়াবে পুঁজিবাজার?

বাণিজ্য ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৩৮, ১০ আগস্ট ২০২২  

ইতিবাচক সব পক্ষ, ঘুরে দাঁড়াবে পুঁজিবাজার?

ইতিবাচক সব পক্ষ, ঘুরে দাঁড়াবে পুঁজিবাজার?

দেশের পুঁজিবাজারকে গতিশীল করতে কাজ করে যাচ্ছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। নিয়ন্ত্রক সংস্থার একের পর এক নেওয়া ইতিবাচক সিদ্ধান্ত পুঁজিবাজারকে আরও ভালো অবস্থানে নিয়ে যাবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

সম্প্রতি দেশের পুঁজিবাজারের বিনিয়োগ বাড়াতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের চার নির্দেশনা দেওয়া হয়। পুঁজিবাজারে চাহিদা বৃদ্ধি, বিনিয়োগকারীদের আস্থা তৈরিসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এছাড়াও ডিএসইসহ ডিবিএর পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানসহ বাজারের উন্নয়নে একসঙ্গে কাজ করার কথা বলা হয়।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, কমিশন আগের চেয়ে অনেক অ্যাক্টিভলি কাজ করছে। যেকোনো পরিস্থিতিতে তাৎক্ষণিক সমাধান করার চেষ্টা করছে, যা বাজারের জন্য ইতিবাচক।

একাধিক বিনিয়োগকারী  বলেন, ‘আমাদের দীর্ঘদিনের চাওয়া এক্সপোজার লিমিট সমস্যার সমাধান করেছে বিএসইসি। বর্তমান গভর্নরের সঙ্গে বিএসইসির একটা ভালো সম্পর্ক রয়েছে। ফলে বিএসইসির সিদ্ধান্তগুলো বাস্তবায়নে সহজ হয়ে যাচ্ছে।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আল আমিন  বলেন, ‘বর্তমান কমিশন দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই বাজারের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় দীর্ঘদিন ঝুলে থাকা একটি সমস্যার সমাধানও করতে দেখেছি। তাই বলা যায়, বিএসইসি আর বাংলাদেশ ব্যাংক একসঙ্গে কাজ করলে সামনে আরো ভালো করা যাবে।’

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পরিচালক শাকিল রিজভী  বলেন, ‘বাজারে বড় বিনিয়োগকারীরা ফিরতে শুরু করেছে। এখন বড় বিনিয়োগ হচ্ছে বাজারে। তা লেনদেনের মধ্য দিয়ে দেখা যায়। এখন দেখা যাচ্ছে প্রতিদিনই হাজার কোটি টাকার ওপরে লেনদেন হচ্ছে। তাই বুঝা যায়, বাজারে বড় বিনিয়োগকারীরা আসতে শুরু করেছে। বাজার দাঁড়াতে বেশি সময় লাগবে না৷

এদিকে সোমবারও লেনদেন হয়েছে হাজার কোটি টাকা।

ডিএসইতে সোমবার মূল্য সূচকের বড় পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। তবে লেনদেন হাজার কোটির ঘরেই রয়েছে। সোমবার ডিএসইতে ১ হাজার ৮৩ কোটি ৪৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

সোমবারের বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, ডিএসই প্রধান বা ডিএসইএক্স সূচক ৪৫ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ছয় হাজার ২৫৮ পয়েন্টে। অন্য সূচকগুলোর মধ্যে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৩৬৮ পয়েন্টে।

ডিএস৩০ সূচক ২১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ২৩৭ পয়েন্টে।

এ দিন ডিএসইতে ৩৮০টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০৩টির, কমেছে ২১১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৬৬টির।

অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই)ও সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। আজ সিএসই সার্বিক সূচক সিএসপিআই ১১৬ পয়েন্ট কমেছে। এদিন সিএসইতে ১৮ কোটি ৩৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়