ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০২১ ||  অগ্রাহায়ণ ২৫ ১৪২৮

রাজধানীতে পুলিশের উপর হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসী দল বিএনপি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:০৩, ২৭ অক্টোবর ২০২১  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

আবারও সহিংস রাজনীতিতে বিএনপি। তারই অংশ হিসেবে ২৬ অক্টোবর (মঙ্গলবার) তারা সম্প্রীতি মিছিলের নামে পুলিশের উপর হামলা চালিয়েছে। এতে বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

নির্ভরযোগ্য সূত্রের তথ্যমতে, সারাদেশে সাম্প্রদায়িক হামলার ইস্যুকে ক্যাশ করে নিজেদের রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের জন্য ২৬ অক্টোবর (মঙ্গলবার) রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এক সম্প্রীতি মিছিলের আয়োজন করে বিএনপি। সেখানে ট্রাকের ওপর অস্থায়ী মঞ্চে দাঁড়িয়ে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামসহ সিনিয়র নেতাকর্মীরা সরকারের মিথ্যা সমালোচনা করে নানা বক্তব্য দেন। শুধু তাই নয়, এ সময় তারা সমবেত নেতাকর্মীদেরও উসকে দেন পুলিশের বিরুদ্ধে। পরে সমাবেশস্থল থেকে বিএনপি নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছোঁড়ে।

পরে মিছিলের অনুমতি না থাকা সত্ত্বেও বিএনপির সশস্ত্র ক্যাডার বাহিনী পুলিশ ও সরকারবিরোধী মিছিল নিয়ে কাকরাইল মোড়ের দিকে এগুতে থাকে। এ সময়ও মিছিল থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছুঁড়ে গাড়ি ভাংচুরের চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। এতে নয়াপল্টন এবং এর পাশের এলাকায় ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

এমতাবস্থায় আরও মারমুখী হয়ে ওঠে বিএনপির ক্যাডাররা। ঘটনায় বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য মারাত্মকভাবে আহত হন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ আসলে সেখানকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এ সময় দূর থেকে এই হট্টগোল চেয়ে চেয়ে দেখলেও সিনিয়র নেতাদের কেউই সেখানে যাননি। বরং অবস্থা বেগতিক দেখে দ্রুত গাড়িযোগে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন মির্জা ফখরুল।

এ বিষয়ে ডিএমপির মতিঝিল বিভাগের সহকারী কমিশনার (এসি) আবুল হাসান এই প্রতিবেদককে বলেন, বিএনপির নেতাকর্মীরা রাজধানীর নাইটিঙ্গেল মোড়ে পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে আমাদের বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়। এ সময় পুলিশ আত্মরক্ষার্থে টিয়ার শেল ছোড়ে। এ ঘটনায় কয়েকজনকে আটক করে পল্টন থানায় নেওয়া হয়েছে। তাদের যাচাই-বাছাই চলছে। বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, আবারও মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে বিএনপি। তারা সহিংসতা সৃষ্টি করে হলেও চাইছে নিজেদের রাজনৈতিক এজেন্ডা বাস্তবায়নে। এমতাবস্থায় সরকারের পাশাপাশি সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে, যাতে তারা কোনভাবেই তাদের অসৎ উদ্দেশ্য সাধন করতে না পারে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়