ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১১ আগস্ট ২০২২ ||  শ্রাবণ ২৭ ১৪২৯

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ১০০ শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উদ্বোধন

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:১৭, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২২  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ভৈরবে ৫০ শয্যা থেকে ১০০ শয্যায় উন্নীতকরণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধন করেন কিশোরগঞ্জ-৬ (ভৈরব-কুলিয়ারচর) আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সভাপতি আলহাজ্ব নাজমুল হাসান পাপন। গত রোববার দুপুর সাড়ে ১২টায় নব-নির্মিত ভবনের উদ্বোধন করেন তিনি।
এ সময় তার সাথে ছিলেন সহধর্মিনী বেক্সিমকো ফার্মা লি. এর পরিচালক রোকসানা হাসান।
উদ্বোধন করা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নতুন ভবনগুলোর নির্মাণ কাজের ব্যয় ধরা হয়েছে ৩১ কোটি টাকা। ১৮ মাসে ভবনগুলো নির্মাণ কাজের সম্পন্ন করার পর আজ উদ্বোধন করা হয়েছে। খুব শীঘ্রই এ ভবনের স্বাস্থ্যসেবার আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হবে।
ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা. বুলবুল আহম্মেদ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, কিশোরগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন ডা. সাইফুল ইসলাম, ভৈরব পৌর মেয়র আলহাজ্ব মো. ইফতেখার হোসেন বেনু, ভৈরব উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সেন্টু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল মনসুর, ভৈরব পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি এসএম বাকী বিল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক আতিক আহমেদ সৌরভ প্রমুখ।
অনুষ্ঠানটির সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন, ভৈরব পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি কাউন্সিলর মো. মোমেন ও সাধারণ সম্পাদক মো. শাহেদ আলী।
এ সময় অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, ভৈরবের স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় উন্নীতকরণে নতুন ভবনের পাশাপাশী একাধিক লোকবল প্রয়োজন। সেই সাথে শীঘ্রই প্রশাসনিক অনুমোদনের জন্য এমপি মহোদয়ের প্রতি আহ্বান জানান এবং ভৈরবে একটি আইভি রহমান নামে মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট টেকনোলজি ইনস্টিটিউট করার আহ্বান জানান।
প্রধান অতিথি আলহাজ্ব নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ভৈরবে স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় চিকিৎসার জন্য কাউকে ঢাকায় যেতে হবে না। সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার একটি লিখিত আবেদন আমার কাছে দিলে আমি সবগুলো প্রয়োজন মিটিয়ে দিব। এ সময় তিনি বলেন, খুব শীঘ্রই ১০০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রশাসনিক অনুমোদন ও ২০ শয্যা বিশিষ্ট ট্রমার সেন্টারের প্রশাসনের অনুমোদনের ব্যবস্থা করব। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সারাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন করছেন। এর ধারা অব্যাহত রেখে ভৈরবেও স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় কোন ঘাটতি থাকবে না।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়