ঢাকা, শনিবার   ২৫ জুন ২০২২ ||  আষাঢ় ১১ ১৪২৯

মুক্তিযুদ্ধের কবিতা: একাত্তর পাতা ও মাথাভাঙ্গা যেন ফোরাত

আবু আফজাল সালেহ

প্রকাশিত: ১৪:৪৭, ৪ ডিসেম্বর ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

একাত্তর পাতা

একাত্তর পাতা খোলো।

অধ্যায় তিন, অনুচ্ছেদ সাত
হ্যামিলিয়নের তর্জনী ও শব্দজাদু,
অনুচ্ছেদ পঁচিশে পৈচাশিক হামলা হায়েনাদের,
ছাব্বিশে তীব্র প্রতিরোধের গল্প।
অধ্যায় চার, পাঁচ, ছয়, সাত, আট...
যুবতির চিৎকার, বিধবার কান্না
ঘরপালানোদের বাবা-মায়ের উৎকণ্ঠা
বাড়িথাকাদের কান্না, বারুদের গন্ধ
অসংখ্য খুলি, সেমিজের রক্ত, আগুন।

যশোর খুলনা চট্টগ্রাম সিলেট চুয়াডাঙ্গায় প্রতিরোধ
অনুচ্ছেদ নয় দশ এগারোতে।

তীব্র প্রতিরোধ বাঙালির বীরত্বগাথা
অধ্যায় বারো।
অনুচ্ছেদ ষোলোয় লাল-সবুজের পতাকা
পতপত করে ওড়ে সমগ্র বাংলাদেশে,
বন্দুকের নলের মাথায় বারুদের গন্ধ নেই
প্রজাপতি উড়ে এসে বসে।

কাহিনি এবার শুধু আমাদেরই।

------------------------------------------

মাথাভাঙ্গা যেন ফোরাত

দশ এপ্রিল অস্থায়ী সরকারের শপথ
তাজউদ্দীনের ইঙ্গিত,
বর্বর-পাকিদের নারকীয় উৎসব
গোলাবর্ষণ, বোমাবর্ষণ, বিমান আক্রমণ চুয়াডাঙ্গায়।

কোকিল, ঘুঘুর চোখে-মুখে বিষণ্নতা,
টগবগে রক্তে ঝাঁজ বেড়ে যায় তরুণের
মুমুক্ষের লক্ষ্য রূপ নেয় প্রতিরোধের
নিরস্ত্রদের অস্ত্র হয় জয়ের তীব্র আকাঙ্ক্ষা,
দেওয়ালে পিঠ-ঠেকাদের অস্ত্র হয় একতা, দেশপ্রেম।

আলমডাঙ্গার লালব্রিজ
নাটুদার আটকবর, ধোপাখালীর গণকবর
অক্সি-অ্যাসিটিলিনের মতো জ্বলে মদনা—বাংলাদেশ
ঘর পোড়ায়—আশ্রয় পোড়ায় মানুষ ও প্রাণীর
যেমন পোড়ানো হয় জেরুজালেম কাশ্মির সিরিয়ায়।

দ্রুম-দ্রুম দ্রুম...
দিগ্বিদিক ছোটে নিরীহ-মানুষ—মেয়েমানুষ, শিশু, যুবা, অন্তঃসত্ত্বা
চুয়াডাঙ্গায়, বাংলাদেশে।
অত্যাচারের চিহ্ন, যুবতীর রক্তমাখা শরীর
মাথার খুলি, ছেঁড়া শার্ট, বিধবার কান্না...
বাতাসে আগুন, ধোঁয়া, বারুদের গন্ধ
শিমুল ও কৃষ্ণচূড়ায় নীলআগুন
তাজা রক্ত, সেমিজের রক্ত, বারুদের রক্ত—রক্তগঙ্গা
মাথাভাঙ্গা যেন কারবালার ফোরাত।

নাটুদহ ধোপাখালী চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গা ডিঙ্গেদহ শরৎগঞ্জ...
না-না, সমগ্র চুয়াডাঙ্গা
না-না, সমগ্র বাংলাদেশই বিরাট বধ্যভূমি।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়