ঢাকা, রোববার   ১৬ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ২ ১৪৩১

শাকিবের পক্ষে বুবলীর ৬ বছর আগের স্ট্যাটাস ভাইরাল

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:৩৪, ২৩ মে ২০২৩  

শাকিবের পক্ষে বুবলীর ৬ বছর আগের স্ট্যাটাস ভাইরাল

শাকিবের পক্ষে বুবলীর ৬ বছর আগের স্ট্যাটাস ভাইরাল

ঢালিউডের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী অভিনয়ের চেয়ে ব্যক্তিগত জীবন নিয়েই সম্প্রতি বেশি আলোচনায় রয়েছেন। শাকিব খানের সঙ্গে তার বৈবাহিক জীবনের ঘটনা নিয়েই সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হয়েছেন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু।

অথচ ২০১৭ সালের এপ্রিলে সাবেক স্ত্রী অপুর বিশ্বাসের সঙ্গে যখন শাকিবের দ্বন্দ্ব চরমে, তখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একাধিক স্ট্যাটাস দিয়ে শাকিবের পক্ষে দাঁড়িয়েছিলেন বুবলী। সেসব স্ট্যাটাসের একটি নতুন করে সামনে এসেছে। সেখানে নানা মন্তব্য করছেন ভক্তরা। আবার বিভিন্ন ফেসবুক পেজেও অনেকেই শেয়ার করছেন বুবলীর সেই স্ট্যাটাস।

ঐ বছর ৩০ এপ্রিল ফেসবুকে শাকিবের একটি ছবি পোস্ট করে বুবলী লেখেন, ‘শাকিব খান বাংলা চলচ্চিত্রে একটি ইতিহাস। উনি ছিলেন, আছেন, থাকবেন ইনশাআল্লাহ। কোনো অপশক্তি, ষড়যন্ত্র, চক্রান্ত তাকে দমাতে পারবে না।’

তিনি আরো লেখেন, ‘যখনই তিনি জাতীয় পর্যায় থেকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আমাদের বাংলা চলচ্চিত্রকে নিয়ে যাচ্ছে তখনই তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে, যার প্রমাণ এর মধ্যে পাচ্ছেন সবাই। কিন্তু আমরা শিল্পীরা, সহকর্মীরা, দর্শকরা, ভক্তরা তাকে আজীবন সাপোর্ট দিয়ে যাব। আমরা আমাদের নিজেদের চলচ্চিত্রের উন্নয়নের স্বার্থেই কাজ করতে চাচ্ছি। তাই আমাদের নিজেদের শিল্পীদের সম্মান করুন, পাশে থাকুন।’

বুললী এই স্ট্যাটাসে অনেকেই নতুন করে মন্তব্য করছেন। তারা বলছেন, ‘স্বার্থ’ শেষ তাই শাকিবকে নিয়ে নিজের অবস্থানও পরিবর্তন করে ফেলেছেন বুবলী।

একজন ভক্ত লিখেছেন, ‘বেচারি, কখনো ভাবেনি যে অপু বিশ্বাসের সঙ্গে যা করেছেন, সময়ের ব্যবধানে তা নিজের জীবনেও ঘটতে পারে। এ শিক্ষাটা পাওয়া আপনার দরকার ছিল।’ অন্য একজন লিখেছেন, ‘সকালে এক কথা বিকালে আরেক কথা।’

নতুন করে এমন অনেক মন্তব্য পড়েছে বুবলীর সেই পোস্টে। এছাড়া বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপেও তার এ স্ট্যাটাস শেয়ার দিয়ে এমন নানা মন্তব্য করছেন নেটিজেনরা।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ১০ এপ্রিল একটি বেসরকারি টেলিভিশনে উপস্থিত হয়ে শাকিবের সঙ্গে নিজের গোপন বিয়ে ও সন্তানের খবর প্রকাশ্যে আনেন অপু বিশ্বাস। এর ফলে তৈরি হয় শাকিবের সঙ্গে দ্বন্দ্ব। সেটি শেষ পযর্ন্ত বিচ্ছেদে গিয়ে পৌঁছায়।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়