ঢাকা, রোববার   ২১ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৫ ১৪৩১

মোংলা ইপিজেডে কর্মরত নারী শ্রমিকদের জন্য ডরমিটরি চালু

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:২৫, ১ জানুয়ারি ২০২২  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

মোংলা ইপিজেডে (রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল) কর্মরত নারী শ্রমিকদের আবাসন সমস্যা নিরসনে ডরমিটরি চালু করা হয়েছে। বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষের (বেপজা) চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল আবুল কালাম মোহাম্মদ জিয়াউর রহমান।

এটিকে দেশের আটটি ইপিজেডের মধ্যে নারী শ্রমিকদের জন্য নির্মিত প্রথম ডরমিটরি বলছেন সংশ্লিষ্টরা।

অবস্থানগত কারণে মোংলা ইপিজেড দূরে অবস্থিত হওয়ায় ইপিজেড এলাকার নারী শ্রমিকদের বসবাসের জন্য কোনো ব্যবস্থা না থাকায় এটি চালু করা হয়েছে। ৭৪ হাজার ২৪৪ বর্গফুটের চার তলাবিশিষ্ট এ ডরমিটরিতে একসঙ্গে ১ হাজার আটজন নারীশ্রমিক থাকতে পারবেন।

বেপজার নির্বাহী পরিচালক (জনসংযোগ) নাজমা বিনতে আলমগীর বলেন, শ্রমিকদের আবাসন সমস্যার সমাধানে ২০১৫ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বেপজা গভর্নর বোর্ডের ৩৩তম সভায় গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এটি চালু করা হয়েছে। দেশের আটটি ইপিজেডের মধ্যে মোংলায় এটিই প্রথম।

ডরমিটরিতে শ্রমিকদের জন্য আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সংবলিত ১২৬টি কক্ষ রয়েছে। সার্বক্ষণিক নিরাপত্তার জন্য নিরাপত্তাপ্রহরীর পাশাপাশি সিসিটিভি নজরদারির ব্যবস্থা রয়েছে বলে জানিয়েছেন বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান ভিআইপির জিএম মিজানুর রহমান খান।

আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে ১৯৯৮ সালে মোংলা ইপিজেড প্রতিষ্ঠিত হয়। এই ইপিজেডে বাংলাদেশ, জাপান, চীন, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র ও থাইল্যান্ডসহ মোট ৩৪টি প্রতিষ্ঠান চালু রয়েছে। এছাড়া আরও আটটি উৎপাদন শুরুর অপেক্ষায়।

ডরমিটরি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মোংলা ইপিজেডের নির্বাহী পরিচালক মাহবুব আহমেদ সিদ্দিক, কমার্শিয়াল অপারেশনের পরিচালক মুহাম্মদ নাজমুল আলম, দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি ও নারীশ্রমিকরা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়