ঢাকা, শনিবার   ১৫ জুন ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪৩১

মাত্র ১০০ টাকায় পুলিশে চাকরি পেয়ে অবাক কেয়া

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:০৪, ২৭ নভেম্বর ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

কামিনী মোহন সেন ও সুচিত্রা রানী সেন দম্পতির ১০ সন্তান। সবার ছোট কেয়া রানী সেন পঞ্চগড় জেলায় পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকরি পেয়েছেন। মাত্র ১০০ টাকায় পুলিশ কনস্টেবলের চাকরি পেয়ে রীতিমত অবাক হয়েছেন কেয়া।

মেধা ও যোগ্যতায় চাকরি পেয়ে পুলিশ প্রশাসন ও সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞ কেয়া। কেয়ার বাড়ি জেলার বোদা উপজেলার পাঁচপীর ইউনিয়নের বৈরাতি সেনপাড়া গ্রামে।

কেয়া বলেন, টাকার অভাবে পরিবারের কোন ভাই-বোনের চাকরি হয়নি, কিন্তু আমি মাত্র ১০০ টাকা খরচ করে সরকারি চাকরি পেয়েছি। এতে আমি খুবই আনন্দিত। পরিবারের কেউই বিষয়টি বিশ্বাস করতে চায়নি। কিন্তু ঘুষ ছাড়া চাকরি এই সত্যকে প্রতিষ্ঠিত করেছে পঞ্চগড়ের পুলিশ প্রশাসন।

পঞ্চগড় পুলিশ লাইনে কনস্টেবল নিয়োগ পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী। মাঠ পর্যায়ে এবং লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে জেলায় মোট ২১ জনকে উত্তীর্ণ করা হয়েছে। অবশ্য আরো পাঁচজনকে অপেক্ষমাণ হিসেবে রাখা হয়েছে। এর মধ্যে সাধারণ পুরুষ কোটায় ১০ জন, মহিলা কোটায় তিনজন, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পাঁচজন, এতিম কোটায় দুইজন ও পুলিশ পোষ্য কোটায় একজন।

প্রার্থী, অভিভাবক ও প্রতিবেশীরা বলেন, ‘পুলিশে চাকরি মানেই টাকার খেলা’ এই অপবাদ ঘুচেছে। মাত্র ১০০ টাকার পে-অর্ডার দিয়েই চাকরি পেয়েছেন ২১ পুলিশ কনস্টেবল।

নিয়োগ প্রাপ্ত কেয়া রানী সেন, রহিমা আক্তার সুমি, উম্মে হাবিবা, জাহাঙ্গীর আলম মুসা, সৌরভ চন্দ্র বর্মণ, হযরত আলী বলেন, মেধা ও যোগ্যতা দিয়ে যে পুলিশে চাকরি পাওয়া যায় তা প্রমাণ হয়েছে। টাকা ছাড়া চাকরি পেয়ে তারা সবাই উচ্ছ্বসিত ।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়