ঢাকা, শুক্রবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৩ ১৪২৭

অজান্তেই ক্যামেরায় ধরা পড়লো মিয়ানমারের সেনা অভ্যুত্থানের ভিডিও

সোশ্যালমিডিয়া ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:৪৬, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

ভিডিও থেকে সংগৃহীত

ভিডিও থেকে সংগৃহীত

ক্যামেরার সামনে নেচে চলছিলেন মিয়ানমারের ফিটনেস প্রশিক্ষক খিন নিন ওয়াই। আর তার পেছনে চলছিল মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সশস্ত্র একটি গাড়ি বহর। নিজের অজান্তেই সেনা অভ্যুত্থানের ভিডিও ধারণ করেন ওই নারী।

বিবিসির প্রতিবেদন অনুসারে, অ্যারোবিকস শিক্ষক মিস খিন সোমবার সকালে ফেসবুকে তার ভিডিওটি পোস্ট করেন। সেসময় মিয়ানমারের সামরিকবাহিনী একটি সেনা অভ্যুত্থান প্রক্রিয়ার মধ্যে ছিল, অং সান সু চিসহ গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত তার দলের অন্য নেতাদের গ্রেফতার করছিল। এর পরে সামরিক বাহিনী ক্ষমতার নিয়ন্ত্রণ নেয় এবং দেশটিতে এক বছরের জরুরি অবস্থা জারি করে। এর মধ্যেই মিস খিন গানের সুরে তার কোমর ঘুরিয়ে চলছিলেন। তিনি আসলে বুঝতেই পারেননি যে তার চারপাশে কী ঘটে চলেছে।

রাজধানী নেপিডোতে পার্লামেন্ট কমপ্লেক্সের দিকে যাওয়া প্রধান সড়কের মোড়ে ভিডিওটি ধারণ করেন তিনি।

তার পোস্টটি দেয়ার পর পরই সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। অনেকেই মিস খিনের নাচ এবং সামরিক বাহিনীর ক্ষমতা দখলের মধ্যে যে বিপরীত চিত্র অঙ্কিত হয়েছে ভিডিওটিতে সেটি নিয়েও কমেন্ট করেছেন।

"ব্যাকগ্রাউন্ডের ছবি আর গানের মধ্যে মিল রয়েছে," মূল পোস্টে এমনটাই লিখেছেন তিনি। সকালের খবর আসার আগ পর্যন্ত একটি প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার জন্য ভিডিওটি ধারণ করছিলাম আমি। কেমন স্মৃতি হয়ে রইলো এটি!

তবে যে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার মুহূর্তে ভিডিওটি ধারণ করা হয়েছিলো তার কারণে ভিডিওটি নিয়ে প্রথমে কিছুটা সন্দেহ জাগে। কিন্তু যখন ইন্টারনেট ঘেঁটে দেখা হয়, সাংবাদিক এবং ভুল তথ্য নিয়ে অনুসন্ধানকারীরা এটির উৎস সম্পর্কে যাচাই করে দেখেন, তখন আর এর সত্যতা নিয়ে কোনো প্রশ্ন থাকে না।

সামাজিক মাধ্যমে ভিডিওটি ব্যাপকভাবে দেখা এবং শেয়ার করা হয়েছে। টুইটারে ভারতীয় এক সাংবাদিকের করা একটি পোস্টই ১৬.৫ মিলিয়ন বার দেখা হয়েছে।

"অবাক করা", "অবিশ্বাস্য" এবং "সংবেদনশীল" বলে ভিডিওটিকে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। রেডিটে এ নিয়ে বেশ কিছু সৃজনশীল পোস্টও দেখা গেছে। যেখানে মিস খিনের ছবি অন্য কিছু ঐতিহাসিক ঘটনায়ও সংযুক্ত করা হয়েছে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয়